২৮ নভেম্বর ২০২১ ১০:৫২ অপরাহ্ন

২৮ নভেম্বর ২০২১ ১০:৫২ অপরাহ্ন

নন্দিত সিলেট

নভেম্বর ২৫, ২০২১
১১:০৫ পূর্বাহ্ন


গৃহবধূকে মারধরের পর হাসপাতালে, মৃত্যুর খবর পেয়ে পালাল শ্বশুরবাড়ির লোকজন


নোয়াখালীর সদর উপজেলায় যৌতুকের টাকার জন্য শিরিন আক্তার নামে এক গৃহবধূকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে।

বুধবার ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ওই গৃহবধূর মৃত্যু হয়।

নিহত গৃহবধূর নাম শিরিন আক্তার (২০)। তিনি সদর উপজেলার ধর্মপুর গ্রামের ইদ্রিস হাওলাদার বাড়ির মো. সেলিমের মেয়ে।

এদিকে গৃহবধূ মৃত্যুর পর তার শ্বশুরবাড়ির লোকজন হাসপাতাল থেকে পালিয়ে যায় বলে জানা গেছে।

বৃহস্পতিবার সকালে নোয়াখালী পুলিশ সুপার (এসপি) মো. শহীদুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, নোয়াখালী পৌরসভার ৪ নম্বর ওয়ার্ডের উত্তর ফকিরপুর এলাকায় গৃহবধূ শিরিনকে যৌতুকের টাকার জন্য তার শ্বশুর, শাশুড়ি, ভাশুর মারধর করে গত মঙ্গলবার দিবাগত রাতে।

পরে ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বুধবার মারা যান তিনি। খবর পেয়ে সুধারাম থানার পুলিশ বুধবার সন্ধ্যায় হাসপাতাল থেকে নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠান।

এ ঘটনায় আইগত পদক্ষেপ প্রক্রিয়াধীন বলে জানান পুলিশের ওই কর্মকর্তা।