০৬ জুলাই ২০২২ ১০:৩৩ অপরাহ্ন

০৬ জুলাই ২০২২ ১০:৩৩ অপরাহ্ন

নন্দিত সিলেট

মে ২৭, ২০২২
৯:০৪ অপরাহ্ন


বাড়তে শুরু করেছে মসলার দাম


দিনাজপুরের হাকিমপুর (হিলি) উপজেলায় কোরবানী ঈদের আগেই বাড়তে শুরু করেছে সব ধরনের মসলার দাম। এক সপ্তাহের ব্যবধানে প্রকারভেদে প্রতি কেজি মসলার দাম বেড়েছে ৫০ থেকে ১০০ টাকা। ব্যবসায়ীরা বলছেন, ডলারের দাম বেড়ে যাওয়ায় মসলার দাম বেড়েছে। হঠাৎ করে এসব পণ্যের দাম বেড়ে যাওয়ায় বিপাকে পড়েছেন ক্রেতারা।

শুক্রবার (২৭ মে) সকালে হিলির মসলার বাজার ঘুরে দেখা যায়, প্রতি কেজি ভারতীয় আমদানী করা জিরার দাম ৫০ টাকা বেড়ে বিক্রি হচ্ছে ৪০০ টাকা কেজি দরে। এ দিকে লবঙ্গ ও সাদা এলাচের দাম কেজিতে বেড়েছে ১০০ টাকা, কালো এলাচের দাম বেড়েছে কেজি ৫০ টাকা, দারুচিনি ১০ টাকা ও কাজুবাদামের দাম কেজিতে বেড়েছে ৫০ টাকা। তবে স্বাভাবিক রয়েছে গোলমরিচসহ অন্য সব মসলার দাম।

হিলি বাজারে মসলা কিনতে আসা মাহিমুল ইসলাম জানান, হিলি বাজারে সব সময় মসলা জাতীয় পণ্যের দাম কম থাকে। দুই সপ্তাহ আগেও জিরা, লবঙ্গ, সাদা এলাচের দাম কম ছিল। এখন হঠাৎ করে দাম বৃদ্ধি পেয়েছে। সামনে কোরবানী ঈদ। মসলার চাহিদা বেশি। ঈদকে লক্ষ্য করে মসলার দাম বৃদ্ধি করেছেন ব্যবসায়ীরা। এতে করে সাধরণ মানুষের অনেক সমস্যায় পড়তে হচ্ছে।

হিলি বাজারের পাইকারি মসলা ব্যবসায়ী আরমান হোসেন জানান, হিলি বাজারে সব ধরনের মসলার দাম বেড়েছে। দাম বাড়ার কারণে মসলা বিক্রি করতে গিয়ে ক্রেতাদের সঙ্গে বিভিন্ন কথা বলতে হচ্ছে। আসলে দাম বাড়ার মূল কারণ ডলারের দাম বেড়ে যাওয়া। যেহেতু বেশিরভাগ মসলা ভারত থেকে আমদানী করতে হয়, তাই ডলারের দাম বাড়লে স্বাভাবিকভাবেই মসলার দাম বেড়ে যায়। ডলারের দাম না কমলে মসলার দাম কমবে না।